শনিবার, ১৬ জানুয়ারী ২০২১, ০৩:৩৩ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম ::
২০ জানুয়ারির মধ্যে সরকারি বিদ্যালয়ে ভর্তি শেষ করার নির্দেশ বিদেশি শিক্ষর্থীদের আগ্রহ বেসরকারিতে বেশি, পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে কম দেশে করোনায় আট মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন মৃত্যু কম মূল্যে কাপড় আমদানি দেখিয়ে জালিয়াতি করে বিপুল রাজস্ব ফাঁকি দিচ্ছে অসাধু আমদানিকারকরা সব সড়ক-মহাসড়কে অপরিকল্পিত গতিরোধক দুর্ঘটনার ঝুঁকি বাড়াচ্ছে নতুন দিনের কবিতা-কথায় ৮০ তম সাউন্ডবাংলা-পল্টনড্ডা দেশে করোনা শনাক্ত রোগীর সংখ্যা সোয়া ৫ লাখ ছাড়াল বিদেশে ফ্ল্যাট কেনা বাংলাদেশিদের তালিকা চেয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে দুদকের চিঠি ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের জন্য আসছে ১০ হাজার কোটি টাকা প্রণোদনা দাতাদের অনুদান কমে যাওয়ায় এনজিও কার্যক্রমে বিপর্যয়ের আশঙ্কা বাড়ছে
আগামী সপ্তাহ থেকে শৈত্যপ্রবাহের পূর্বাভাস

আগামী সপ্তাহ থেকে শৈত্যপ্রবাহের পূর্বাভাস

বি নিউজ : দেশে শৈত্যপ্রবাহ বইছে না। অথচ রাজধানীসহ সারাদেশে বেড়েছে শীতের অনুভূতি। মূলত দিনের তাপমাত্রা কমে যাওয়ায় শীত বেড়েছে। আগামী চার-পাঁচদিন এমনই থাকবে। এরপর ৭-৮ দিনের মধ্যে শৈত্যপ্রবাহ আসতে পারে। আবহাওয়া অধিদপ্তরের তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, সারাদেশে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা একদম নিচে নেমে এসেছে। গত বৃহস্পতিবার সিরাজগঞ্জের তাড়াশে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে ১৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। শুধু তাই নয়, দেশের মাত্র ৫টি অঞ্চল বাদে সারাদেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ১৯ থেকে ২৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে। আর বেশিরভাগ অঞ্চলের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ১৯ থেকে ২৩ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে। আবহাওয়াবিদ ওমর ফারুক বলেন, সারাদেশেই শীতের অনুভূতি বেড়েছে। সূর্যের আলো পড়ছে না, দিনের বেলা তাপমাত্রা খুব কম থাকছে- এ কারণে শীতের অনুভূতি বেড়েছে। শীত কিন্তু এখনও শুরু হয়নি। ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে তাপমাত্রা আসলে শৈত্যপ্রবাহ শুরু হয়। শৈত্যপ্রবাহ না বইলেও শীতের অনুভূতি বেড়ে গেছে। তিনি আরও বলেন, আগামী ১৭ থেকে ১৮ ডিসেম্বরের মধ্যে শৈত্যপ্রবাহ চলে আসতে পারে। এদিকে আরও চার-পাঁচ দিন এ অবস্থাই থাকতে পারে। এর মধ্যে দেশের পশ্চিমাঞ্চলে হালকা বৃষ্টিরও সম্ভাবনা রয়েছে। সবমিলিয়ে শীতের অনুভূতি আরও বাড়তে পারে। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা কমলেও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা খুব একটা কমেনি। ফলে সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রার পার্থক্য কমে এসেছে। যেমন ঢাকায় আজ শুক্রবার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে ১৭ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং গত বৃহস্পতিবার সূর্য উঠলেও সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছিল ২৩ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। অর্থাৎ, ঢাকায় সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রার মধ্যে পার্থক্য মাত্র ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আজ শুক্রবার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে সীতাকু-ে ১৪ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। গত বৃহস্পতিবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছিল টেকনাফে, ২৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এদিকে আজ শুক্রবার সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশের আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। মধ্যরাত থেকে দুপুর পর্যন্ত সারাদেশের নদী অববাহিকায় মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা থাকতে পারে এবং অন্যত্র হালকা থেকে মাঝারি ধরনের কুয়াশা থাকতে পারে। সারাদেশে রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত এবং দিনের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে বলেও জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018-20
Design & Developed BY Md Taher