রবিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৫:৪২ অপরাহ্ন

রাজনীতিকদের চরিত্র হননের চেষ্টা অব্যাহত: তথ্যমন্ত্রী

রাজনীতিকদের চরিত্র হননের চেষ্টা অব্যাহত: তথ্যমন্ত্রী

বি নিউজ : তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, বিরাজনীতিকরণের অংশ হিসাবে সেদিন এক-এগারোর সৃষ্টি করা হয়েছে। আজকেও সেই প্রচেষ্টা সূক্ষ্মভাবে আছে। কিছু কাগজপত্র (পত্রিকা) দেখলে আপনারা দেখতে পাবেন- সেখানে প্রায়শই রাজনীতিকদের চরিত্র হনন করার চেষ্টা করা হচ্ছে। এই চক্রান্তে যারা লিপ্ত ছিল, তারা আজও সক্রিয়। আজ বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবে ডা. সৈয়দ মোদাচ্ছের আলীর লেখা ‘আমার দেখা ওয়ান ইলেভেন’ শীর্ষক বইয়ের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। এসময় তথ্যমন্ত্রী আরও বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বের গুণাবলী ও তার দূরদর্শিতার কাছে বিরোধী রাজনৈতিক পক্ষ চরমভাবে পরাজিত। আজ তারা রাজনৈতিকভাবে পরাজিত হয়ে ভিন্ন কৌশলে আবারও ওয়ান ইলেভেনের চক্রান্ত করছে। সে কারণে বিএনপি তাদের সঙ্গে হাত মিলিয়ে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। তথ্যমন্ত্রী বলেন, ওয়ান ইলেভেনের সময় রাজনীতিকদের জনসমক্ষে হেয় প্রতিপন্ন করা হয়েছে। তখন বাবার অপরাধে মেয়েকেও গ্রেফতার করা হয়েছে। সাহস ছাড়া বেশিদূর আগানো যায় না মন্তব্য করেন তথ্যমন্ত্রী বলেন, রাজনীতিতে সাহসী হতে হবে। তিনি বলেন, আজকে শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কৌশলের কাছে, নেতৃত্বের গুণাবলীর কাছে, দূরদর্শীতার কাছে, রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ পরাজিত। তারা রাজনৈতিকভাবে মোকাবিলা করতে না পেরে ষড়যন্ত্রের পথে হাঁটছে। তিনি বলেন, বিএনপি ও তার দোসররা জননেত্রী শেখ হাসিনাকে রাজনৈতিকভাবে মোকাবিলা করতে ব্যর্থ। তারা এখন ১/১১ এর কুশলীদের সঙ্গে হাত মিলিয়েছে। তাদের সঙ্গে যুক্ত হয়ে তারা নানা ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। ড. হাছান মাহমুদ বলেন, বিএনপির অনেক নেতাকর্মী বলেছে, জননেত্রী শেখ হাসিনার পরিণতি ৭৫ এর ঘটনার মতো হবে। এজন্য অনেক নেতাকর্মীর নামে মামলাও হয়েছে। তিনি এও বলেন, ১/১১ এর সময় শেখ হাসিনাকে গ্রেফতার করা হয়। তার মুক্তির মাধ্যমে গণতন্ত্রের মুক্তি হয়। তার হাত ধরে বাংলাদেশ এখন মর্যাদার আসনে উন্নীত হয়েছে। শেখ হাসিনা এখন শুধু আওয়ামী লীগের সভাপতি নন, প্রধানমন্ত্রী নন, তিনি রাষ্ট্রনায়কও। তিনি এখন পৃথিবীর অনুকরণীয় প্রধানমন্ত্রী। অনুকরণীয় রাষ্ট্রনায়কে রূপান্তরিত হয়েছেন। তিনি আজ বিশ্বনেতায় পরিণত হয়েছেন। ভাষাচিত্র প্রকাশনীর প্রকাশনা উৎসবে আরও বক্তব্য দেন ‘আমার দেখা ওয়ান ইলেভেন’ গ্রন্থের লেখক অধ্যাপক ডা. সৈয়দ মোদাচ্ছের আলী, জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি সাইফুল আলম, দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিনের সম্পাদক নঈম নিজাম, রাজনৈতিক বিশ্লেষক সৈয়দ বুরহান কবির, অধ্যাপক ডা. এমএ আজিজ, দৈনিক বাংলার সময়ের সুভাষ সিংহ রায় প্রমুখ।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018-20
Design & Developed BY Md Taher