বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯, ০৮:৩০ অপরাহ্ন

রাঙামাটিতে পর্যটকের ভিড় বাড়ছে

রাঙামাটিতে পর্যটকের ভিড় বাড়ছে

বি নিউজ : নির্বাচনকালীন স্থবিরতা কাটিয়ে চাঙ্গা হতে শুরু করেছে রাঙামাটি পর্যটন শিল্প। গত বছরের ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন, এছাড়াও বিদ্যালয়গুলোতে বই উৎসব ও ভর্তি কার্যক্রমের জন্য সৌন্দর্যের রানি খ্যাত রাঙামাটিতে পর্যটন মৌসুমেও দেখা মেলেনি পর্যটকদের। তবে নির্বাচন শেষ ও শীত জমে ওঠায় ইতোমধ্যে আসতে শুরু করেছে পর্যটকরা। এতে চাঙ্গা হয়ে উঠেছে পর্যটন সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলো। জানা যায়, প্রতি বছর অক্টোবর থেকে মার্চ পর্যন্ত পার্বত্য জেলা রাঙামাটিতে পর্যটকরা ভিড় করে। এই পর্যটকদের ওপর নির্ভর করে এখানে গড়ে উঠেছে শতাধিক পর্যটক সংশ্লিষ্ট ব্যবসা প্রতিষ্ঠান। কিন্তু একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন, বিদ্যালয়গুলোতে বই উৎসব ও ভর্তি কর্যক্রমের কারণে ভরা মৌসুমেও দেখা মিলছিল না পর্যটকদের। এতে হতাশ হয়ে পড়ে পর্যটনসংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীরা। নির্বাচন শেষে পর্যটকরা রাঙামাটিমুখী হওয়ায় হাসি ফুটেছে ব্যবসায়ীদের মুখে। ঢাকা থেকে বেড়াতে আসা এক দম্পতি জানান, বাচ্চাদের পরীক্ষা ও ভর্তির কাজ শেষ। আর কয়েকদিন পার বাচ্চাদের স্কুল খুলবে। তাই এই সুযোগে রাঙামাটিতে ঘুরতে এসেছি। চট্টগ্রাম থেকে ঘুরতে আসা মোতালেব হোসেন বলেন, পরিবারের সবাইকে নিয়ে প্রতি বছর প্রাকৃতির কাছাকাছি ঘুরতে যাই। শান্তিপূর্ণভাবে নির্বাচন শেষ হওয়ায় রূপের রানি খ্যাত রাঙামাটিতে চলে আসলাম। বাংলাদেশে এমন সুন্দর জায়গা আছে এখানে না এলে বলে বোঝানো যাবে না। মতি মহল আবাসিক হোটেলের মালিক মো. আজম জানান, প্রতিবছর ডিসেম্বর থেকে পর্যটকের ঢল নামে রাঙামাটিতে কিন্তু এবছর ডিসেম্বরে নির্বাচন হওয়ার কারণে ডিসেম্বরে কিছুটা কম ছিল পর্যটক। নির্বাচন শান্তিপূর্ণভাবে শেষ হওয়ায় বুকিং শুরু হয়েছে। আশা করছি ভালোই পর্যটক পাবো এবছর। রাঙামাটি পর্যটন করপোরেশন এর ব্যবস্থাপক সৃজন বিকাশ বড়ুয়া বলেন, ইতোমধ্যে ডিসেম্বরের শুরুতে কিছুটা কম পর্যটক থাকলেও জানুয়ারি মাসে ৭০ শতাংশ বুকিং আছে বলে জানা গেছে। পর্যটকদের বরণ করে নিতে সকল প্রকার প্রস্তুতি রয়েছে। রাঙামাটি ট্যুরিস্ট পুলিশের ওসি ছাইদুল হক বলেন, পর্যটকরা যাতে নির্বিঘেœ ঘুরে বেড়াতে পারেন, সে বিষয়ে ব্যবস্থা নিয়েছে ট্যুরিস্ট পুলিশ। প্রসঙ্গত, প্রতি বছর পর্যটন মৌসুমে রাঙামাটি জেলায় প্রায় পাঁচ লাখ পর্যটকের সমাগম হয়। তবে এর মধ্যে সিংহভাগ পর্যটকই আসেন ডিসেম্বর থেকে ফেব্রুয়ারি মাসের মধ্যে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2017 bnewsbd24.Com
Design & Developed BY Md Taher