August 3, 2020, 9:23 pm

পটুয়াখালী-৪ নির্বাচনী প্রচারণা- আমি বিজয়ী হলে কুয়াকাটাকে উপজেলা করা হবে॥ অধ্যক্ষ মুহিব…..

পটুয়াখালী-৪ নির্বাচনী প্রচারণা- আমি বিজয়ী হলে কুয়াকাটাকে উপজেলা করা হবে॥ অধ্যক্ষ মুহিব…..

আনোয়ার হোসেন আনু,কুয়াকাটা থেকে॥ পটুয়াখালী-০৪ আসনের আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী অধ্যক্ষ মহিব্বুর রহমান মহিব বলেছেন, আমি বিজয়ী হলে কুয়াকাটাকে আর্ন্তজাতিক মানের পর্যটন নগরী গড়ে তোলা হবে। কুয়াকাটাকে উপজেলায় রুপান্তর করা হবে। এই এলাকার রাস্তাঘাট থেকে শুরু করে যে সকল সমস্যা আছে আমি তার সমাধান করে দেব। বৃহত্তম লতাচাপলী ইউনিয়নে আমার জন্ম। তাই আমি আপনাদের সন্তান। এলাকার সন্তান হিসেবে আগামী ৩০ তারিখ নির্বাচনে শতকরা ৯৯ ভাগ ভোট দিয়ে বিজয়ী করার জন্য আপনাদের কাছে দাবী জানাই। সোমবার শেষ বিকেলে পর্যটন নগরী কুয়াকাটা পৌর আওয়ামীলীগের আয়োজনে রাখাইন মহিলা মার্কেট মাঠে বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। বর্ধিত সভা জনসমাবেশে পরিনত হয়ে যায়। বিভিন্ন এলাকা থেকে শত শত নেতাকর্মিরা খন্ড খন্ড মিছিল নিয়ে সভাস্থলে উপস্থিত হয়। এ সময় কয়েক হাজার মানুষ জমায়েত হয়। জনসভা শেষ হওয়ার পর মহিপুর থানা এলাকার বিভিন্ন স্থান থেকে মিছিল সহকারে জনসভাস্থলে আসেন।
কুয়াকাটা পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি ও পৌর মেয়র আঃ বারেক মোল্লার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মুহিব আরো বলেন,মানুষের সেবা করার জন্য জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে এই এলাকায় নৌকার প্রতীক দিয়ে পাঠিয়েছেন। আপনারা নৌকায় ভোট দিয়ে আমাকে জয়যুক্ত করুন। আমি পর্যটন কেন্দ্র কুয়াকাটার উন্নয়ন এনে দেব। পর্যটন নগরী কুয়াকাটা, পায়রা সমুদ্র বন্দরসহ গোটা দক্ষিনাঞ্চলকে ঘিরে শেখ হাসিনা মহা উন্নয়ন পরিকল্পনা গ্রহন করেছেন। তা বাস্তবায়নে কাজ চলছে। আওয়ামীলীগকে ভোট দিয়ে সেই উন্নয়ন কাজের ধারাবাহিকতা বজায় রাখুন। নৌকা বিজয়ী হলে আপনাদের ভাগ্যের আরো পরিবর্তন হবে। আওয়ামীলীগ সরকার ক্ষমতায় এসে (কুয়াকাটা-মহিপুর-কলাপাড়া-রাঙ্গাবালীর) অবহেলিত মানুষের আমুল পরিবর্তন করেছেন। সমুদ্র উপকূলের মানুষের অধিকার রক্ষায় এ সরকার বদ্ধপরিকর।
শুভেচ্ছা বক্তব্যে পৌর মেয়র বারেক মোল্লা বলেন, কুয়াকাটা এক সময় জনমানব শুণ্য অনুন্নত এলাকা ছিল। গ্রাম থেকে পৌরসভায় উন্নতি করা হয়েছে। সেই কুয়াকাটায় পর্যটন কেন্দ্র হওয়ার পর এখানকার মানুষ এখন সামাজিক এবং অর্থনৈতিক ভাবে উন্নত হয়েছে। সারা বিশ্বে কুয়াকাটা এখন পরিচিত একটি মুখ। কুয়াকাটায় লাইট হাউজ ও কোষ্ট রেডিও স্টেশন, সাবমেরিন কেবল ল্যান্ডিং ষ্টেশন, কুয়াকাটা-ঢাকা মহাসড়ক ও সড়কের উপর নির্মিত শেখ কামাল,শেখ জামাল ও শেখ রাশেল সেতু সহ বিভিন্ন স্থাপনা গড়ে তোলা হচ্ছে। কুয়াকাটায় আধুনিক বাস টার্মিনাল নির্মানে কাজ চলছে। এ অবদান শেখ হাসিনার। আপনাদের ভাগ্যের পরিবর্তন ও উন্নয়নে কাজ করছে আওয়ামীলীগ। তাই আপনাদের ভোটের দাবিদারও আওয়ামীলীগ। আসুন আওয়ামীলীগকে আগামী ৩০ তারিখ শতভাগ ভোট দিয়ে বিজয়ী করুন। সভার সঞ্চালনা করেন পৌর আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অনন্ত মুখার্জী।
এ সময় আরো বক্তব্য রাখেন, পৌর যুবলীগের আহবায়ক মোঃ ইসাহাক শেখ, পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি মোঃ মজিবুর রহমান, ভূইয়া মার্কেট সভাপতি মোঃ নিজাম হাওলাদার, সেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি মোঃ সহিদ দেওয়ান, শ্রমীকলীগ সভাপতি আব্বাস কাজী,কাউন্সিলর মোঃ শাহ আলম হাওলাদার ও মোঃ তৈয়বুর রহমান প্রমুখ॥
বর্ধিত সভায় উপস্থিত ছিলেন, কলাপাড়া উপজেলা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আঃ মোতালেব তালুকদার, কুয়াকাটা পৌর আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আলহাজ্ব মনির আহম্মেদ ভূইয়া,ঢাকা দক্ষিন যুবলীগের সহ সভাপতি মুরসালিন আহমেদ, লতাচাপলী ইউনিয়ন আ’লীগ সভাপতি ডাঃ ছিদ্দিকুর রহমান বিশ্বাস, ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ আনছার উদ্দিন মোল্লা, জাতীয় পার্টি (এ) মহিপুর থানা শাখার সভাপতি মোঃ আনোয়ার হোসেন হাওলাদার, কুয়াকাটা পৌর প্যানেল মেয়র পান্না হাওলাদার, সহসভাপতি আঃ খালেক খানসহ পৌর কাউন্সিলর ও যুবলীগ, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগসহ দলীয় অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মিসহ প্রায় ১০ হাজার নারী পুরুষ সভায় অংশগ্রহন করেন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2017 ThemesBazar.Com
Design & Developed BY Md Taher