বৃহস্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৮:৫৬ অপরাহ্ন

সংলাপ শেষ না হওয়া পর্যন্ত তফসিল না দিতে ইসিকে ড. কামালের চিঠি

সংলাপ শেষ না হওয়া পর্যন্ত তফসিল না দিতে ইসিকে ড. কামালের চিঠি

বি নিউজ : রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর সংলাপ শেষ না হওয়া পর্যন্ত একাদশ সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা না করতে নির্বাচন কমিশনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। আজ শনিবার বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে ঐক্যফ্রন্টের প্রধান নেতা কামাল হোসেন স্বাক্ষরিত এ-সংক্রান্ত একটি চিঠি প্রধান নির্বাচন কমিশনারের (সিইসি) দপ্তরে পৌঁছে দেন গণফোরামের কেন্দ্রীয় কমিটির সম্পাদক (প্রশিক্ষণ) রফিকুল ইসলাম পথিক। ওই সময় সিইসির সভাপতিত্বে ইসির ৩৮তম কমিশন সভা চলছিলো। তফসিলের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে রোববার কমিশনের নির্ধারিত সভা রয়েছে। কামালের চিঠিতে বলা হয়, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের সংলাপ অব্যাহত আছে। আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক জানিয়েছেন, ৮ নভেম্বরের পরে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সাথে প্রধানমন্ত্রীর আবারো সংলাপের বিষয়টি বিবেচনায় রয়েছে। জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট প্রধানমন্ত্রীর সাথে আবারো সংলাপে বসার ব্যাপারে ইচ্ছুক। এই প্রেক্ষাপটে আমরা মনে করি যে তফসিল ঘোষণার ক্ষেত্রে সিদ্ধান্ত নেওয়ার বিষয়টি রাজনৈতিক প্রক্রিয়া। বিশেষ করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সংলাপ শেষ না হওয়া পর্যন্ত ইসির অপেক্ষা করাই শ্রেয়। সংলাপ শেষ হওয়ার পর তফসিল ঘোষণার তারিখ নির্ধারণের অনুরোধ জানিয়ে কামাল চিঠিতে আরও বলেন, তফসিল ঘোষণার দিনক্ষণ নির্ধারণে আপনাদের এমন অপেক্ষা রাজনৈতিক দল ও জনগণের মধ্যে ইসির প্রতি আস্থা বাড়ানোর ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। ইসির একাদশ সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার প্রস্তুতির মধ্যে অপ্রত্যাশিতভাবে সংলাপের আহ্বানে সাড়া দিয়ে প্রথমে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সঙ্গে গণভবনে গত বৃহস্পতিবার আলোচনায় বসেন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ওই সংলাপের পর আরও আলোচনা হতে পারে বলে জানিয়েছিলেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। এর মধ্যে আরও রাজনৈতিক দলকেও সংলাপে ডেকেছেন প্রধানমন্ত্রী। এরপর কাদের গতকাল শনিবার সাংবাদিকদের বলেন, ৭ নভেম্বরেই সংলাপ শেষ হবে। এরপর আর কোনো আলোচনা হবে না।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2017 bnewsbd24.Com
Design & Developed BY Md Taher