মঙ্গলবার, ১৮ ডিসেম্বর ২০১৮, ১০:২২ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
কলাপাড়ায় নৌকা মার্কার সমর্থনে হাজারো মানুষের মিছিল জাগৃকের প্রকল্পগুলো ঝুলে থাকায় গ্রাহক ও জনপ্রতিনিদের মধ্যে ক্ষোভ বাড়ছে অর্ধশত মন্ত্রণালয় ও দপ্তরের বকেয়া বিল উত্তোলন নিয়ে আতঙ্কে বিদ্যুৎ বিভাগ পটুয়াখালী-৪ আসন- আ’লীগের প্রত্যাশা পুর্নদখল,বিএনপির অস্থিত্বের লড়াই কুয়াকাটা মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মা সমাবেশ অনুষ্ঠিত বাউফলে নৌকার মাঝির বিরুদ্ধাচারণকারীরা মাঠে নেই বাউফলে মহিলা আওয়ামী লীগের উঠান বৈঠক ইতিহাসে প্রতিদিন আজ (মঙ্গলবার) ১৮ ডিসেম্বর’২০১৮ (বিশ্ব অভিবাসী দিবস) সার্টিফিকেট নির্ভর নয়, মানসম্পন্ন শিক্ষা জরুরি | মো: হায়দার আলী পোশাকশিল্পে উত্তেজনা
কুড়িগ্রামের হাতিয়ায় গণহত্যা দিবস পালিত

কুড়িগ্রামের হাতিয়ায় গণহত্যা দিবস পালিত

বি নিউজ : কুড়িগ্রামের উলিপুর উপজেলার হাতিয়ায় গণহত্যা দিবস পালিত হয়েছে। আজ মঙ্গলবার দিবসটি উপলক্ষে হাতিয়া বাজার মোড়ে শহীদদের স্মরণে নির্মিত স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পস্তবক অর্পণ, মিলাদ মাহফিল, শোক র্যালি ও আলোচনা সভার আয়োজন করে জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও সাধারণ মানুষ। হাতিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চত্বরে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন উলিপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আবদুল কাদের, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ডেপুটি কমান্ডার আমিনুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আবদুল কুদ্দুস, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার ফয়জার রহমান, এসআই মশিউর রহমান, হাতিয়া ইউপি চেয়ারম্যান বিএম আবুল হোসেন, ইউনিয়ন মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মিজানুর রহমান প্রমুখ। ১৯৭১ সালের ১৩ নভেম্বর পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী কুড়িগ্রামের উলিপুর উপজেলার হাতিয়া ইউনিয়নে নারকীয় তান্ডব চালিয়ে হত্যা করেছিল ৬৯৭ জন নিরপরাধ মানুষকে। সেদিন ছিল ২৩ রমজান, চারিদিক সুনসান নিরবতা। রোজাদার মানুষ সেহেরি খেয়ে ঘুমিয়ে পড়েছে। ফজরের নামাজের আগে হঠাৎ করেই চারদিক থেকে শুরু হয় অতর্কিতে বৃষ্টির মতো গুলি আর মর্টার সেলের গোলাবর্ষণ। ঘুমন্ত মানুষ আকস্মিক এ হামলায় প্রাণ ভয়ে ছুটতে থাকে। এরমধ্যেই চারদিক থেকে পুরো এলাকা ঘিরে ফেলে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী। চিরুনী অপারেশন চালিয়ে উলিপুরের অনন্তপুর, রামখানা, নয়াডারা, বাগুয়া, নীলকন্ঠ, দাগার কুটিসহ সাতটি গ্রামের অসহায় ৬৯৭ জন নারী, পুরুষ ও শিশুকে দাগার কুটি খালের একত্র করে গুলি ও পুড়িয়ে হত্যা করে পাক বাহিনী। অনেকে সেদিনের নিষ্ঠুরতার কাহিনি স্মরণ করে আজো আঁতকে ওঠেন।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2017 bnewsbd24.Com
Design & Developed BY Md Taher